Redmi Note 10 ফোনের সম্পূর্ণ বাংলা রিভিউ

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। আপনাদেরকে আবারো আমাদের সাইটে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক স্বাগতম জানাই। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে Redmi Note 10 ফোন টি এর সমস্ত বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

 

Redmi Note 10
Redmi Note 10

 

Redmi Note 10 Price In Bangladesh

Redmi Note 10 বাংলাদেশের বাজারে ১৬ই মার্চ ২০২১ সালে লঞ্চ করা হয়েছিলো। এই ফোন টি আমাদের দেশের বাজারে ৩ টি ভ্যারিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছিলো। এই ফোন টি যে ৩ টি ভ্যারিয়েন্টে লঞ্চ করা হয় সেগুলো হলোঃ

১. ৪ জিবি র‍্যাম ৬৪ জিবি স্টোরেজ
২. ৪ জিবি র‍্যাম ১২৮ জিবি স্টোরেজ
৩. ৬ জিবি র‍্যাম ১২৮ জিবি স্টোরেজ

এই ৩ টি ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ৩ রকম। এখান থেকে ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের ফোন টি এর মূল্য হলো ১৯,৯৯৯ টাকা। ৪ জিবি র‍্যাম ১২৮ জিবি স্টোরেজ এই ভ্যাতিয়েন্টের মূল্য ২০,৯৯৯ টাকা। এবং ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট এর মূল্য হলো ২২,৯৯৯ টাকা।

Box Content

Redmi Note 10 ফোন টি এর বক্সের ভেতরে আপনারা যা যা পাবেন তা নিচে দেওয়া হলোঃ

১. Redmi Note 10 স্মার্টফোন টি,
২. ইউজার ম্যানুয়াল,
৩. সিলিকন ফোন কাভার,
৪. ফাস্ট চার্জার,
৫. ফাস্ট চার্জিং ক্যবল।

তো এই জিনিস গুলোই আপনারা পাবেন এই ফোনের বক্সের ভেতর থেকে।

Designs

Redmi Note 10 সুন্দর একটি ডিজাইন এর সাথে লঞ্চ হয়েছে মার্কেটে। এই ফোন টি মোট ৩ টি ভ্যারিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছে। সেগুলো হলোঃ Shadow Black (Onyx Gray), Frost White (Pebble White), Aqua Green (Lake Green)।

ফোন টি দেখতে বেশ সুন্দর। এবং এই ফোন টি এক হাতে বেশ ভালো ভাবেই ব্যবহার করা যায়। ফোন টি বেশি ভালো নয় মত্র ১৮০ গ্রাম। যার ফলে এক হাতে নিয়ে ব্যবহারে বেশি ভারীও মনে হয় না। ফোন টি এর সম্পূর্ণ বডি এবং রেয়ার প্যানেল প্লাস্টিক বডি বিল্ডের।

আরো পড়ুনঃ এন্ড্রয়েডের গুরুত্বপূর্ণ টিপস যা আপনার প্রয়োজন

Display

Redmi Note 10 এ ব্যবহার করা হয়েছে ৬.৪৩ ইঞ্চি এর একটি ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশন এর একটি ডিসপ্লে। এবং ডিসপ্লে টি এর ppi density হলো ৪০৯। এর ডিসপ্লে তে কোন প্রটেকশন ব্যবহার করা হয়েছে তা অফিসিয়ালি ভাবে জানা যায় নি। তবে বিভিন্ন ওয়েব সাইট থেকে জানা গেছে এতে কর্ণিং গোরিলা গ্লাস ৩ ব্যবহার করা হয়েছে। তো যাই ব্যবহার করা হোক না কেন, আমার মত থাকবে আপনারা এতে একটা ডিসপ্লে প্রটেকশন ব্যবহার করবেন।

এই ডিসপ্লে এর ব্রাইটনেস হলো ১,১০০ নিটস। যা অনেক ভালো। এটি ইন্ডোর এর পাশাপাশি আউটডোরে বেশ ভালো ব্রাইট দিবে আপনাকে। তো যাই বলুন, এই বাজেট অনুযায়ী এই ফোন টি অনেক ভালো একটি ফোন। এই ফোনের ডিসপ্লে এর কালার এবং টাচ রেসপন্স বেশ ভালো পাবেন আপনারা।

Side Specifies

এই ফোনের ডান পাশে দেওয়া হয়েছে পাওয়ার অফ বাটন। এবং এটিই এই Redmi Note 10 ফোনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। আপনার হাতের সাইজ অনুযায়ী আশা করা যায় সেন্সর টি একদম ঠিক যায়গা তেই পাবেন। এই সেন্সর এর ঠিক উপরেই রয়েছে ভলিউম বাটন।

এই ফোনের নিচের দিকে দেওয়া রয়েছে স্পিকার, চার্জিং স্লট, মাইক্রো পোর্ট এবং ৩.৫ মি.মি. এর একটি ইয়ারফোন জ্যাক স্লট। এর উপরের সাইড একদম ফাকা রাখা হয়েছে। এবং এর বাম সাইডে রয়েছে সিম কার্ড স্লট।

Performance

এবার যদি আমরা Redmi Note 10 পারফরম্যান্স নিয়ে কথা বলি তাহলে বলতেই হবে অন্যান্য এই বাজেট ফোন গুলো থেকে এটি বেশ এগিয়ে রয়েছে। এই ফোনে প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Qualcomm Snapdragon 678 (11 nm) । এবং এতে এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে এন্ড্রয়েড ১১৷ এর গ্রাফিক্স সিস্টেম কে পাওয়ার করছে Adreo 612।

এই ফোনে রেগুলার কাজে আপনারা কোনো ধরণের সমস্যা পাবেন না। কিন্তু হ্যাভি ইউজে একটু আকটু বাগ পেতে পারেন। ফোনে যেহেতু র‍্যাম আপনারা ভালো পাচ্ছেন তাই মাল্টিটাচ এও ভালোই রেজাল্ট পাবেন।

 

Redmi Note 10
Redmi Note 10

 

Gaming

এই Redmi Note 10 ফোনে আপনারা পাবজি, ফ্রি ফায়ার, কল অফ ডিউটি এর মতো গেম ভালো ভাবেই খেলতে পারবেন। পাবজি গেম এই ফোনে সর্বোচ্চ আপনারা এইচডি ফ্রেম রেটে খেলতে পারবেন। আর এই ফোনে পাবজি গেম খেলার সময় লং গেমিং এও ফোন বেশি গরম হবে না, তবে হ্যাভি গেমিং এ একটু আকটু বাগ পাবেন। তাছাড়া এই ফোনে গেমিং বাগ আপনারা পাবেন না বললেই চলে।

এছাড়া সাধারণ নরমাল গেমিং এর জন্য এই ফোন আপনাকে আশানুরূপ ফলাফল দিবে।

Battery

এই Redmi Note 10 এ ব্যাটারি হিসেবে আপনারা পাচ্ছেন ৫০০০ মিলিএম্পিয়ার এর একটি বিশাল ব্যাটারি। এবং এর বক্সে দেওয়া আছে ৩৩ ওয়ার্টে এর ফাস্ট চার্জার। যা দিয়ে আপনি এই ফোন কে ০ – ১০০ ফুল চার্জ করতে সময় লাগবে ১ ঘন্টা ১৫ মিনিট বা এর কাছা কাছি সময় এর মতো।

এবং এই ফোনে আপনারা হ্যাভি ইউজে ১ দিনের মতো ব্যাকআপ পাবেন। কিন্তু আপনারা যদি নরমাল ইউজার হন আপনারা ২ থেকে ২.৫ দিনের মতো ব্যাকআপ পাবেন।

Camera

এই ফোনের রেয়ারে আপনারা পাচ্ছেন ৪ টি ক্যামেরা। যেগুলো যথাক্রমে ৪৮, ৮, ২, ২ মেগা পিক্সেল এর। আপনারা যদি এই ফোনের মেইন শুটার দিয়ে বেশ ভালোই ছবি তুলতে পারবেন। এবং প্রোপার ডে লাইট কিংবা এরকম কন্ডিশনে বেশ ভালোই ছবি তুলতে পারবেন এই ফোন দিয়ে। এছাড়া এই ফোনের বাকি ক্যামেরা গুলো দিয়েও বেশ ভালো ছবি আপনারা তুলতে পারবেন।

এই ফোনের ফন্ট ক্যামেরা ১৩ মেগা পিক্সেল এর। যা বেশ ভালো ছবি দিবে আপনাকে। এই ফোনের ক্যামেরা দিয়ে বেশ ভালোই ছবি আপনারা তুলতে পারবেন। এই ফোনের ক্যামেরা বেশ ভালোই শার্পনেস ধরে রাখতে পারবেন। যা দিয়ে আপনারা বেশ ভালো ছবি তুলতে পারবেন।

 আরো পড়ুন 

 

তো প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি আপনাদের কাছে আজকের এই পোস্ট টি ভালো লেগেছে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন। এবং আমাদের সাইটে এরকম আরো অনেক হেল্পফুল পোস্ট রয়েছে সেগুলো পড়তে চাইলে আমাদের সাইট টি একবার ভিজিট করুন। আর আজকের মতো এখানেই বিদায়, ভালো থাকবেন সুস্থ্য থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.