ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায়

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায়

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায়

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ।  আশা করি ভাল আছেন । আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি আলহামদুলিল্লাহ। আর ভালো আছি বলেই তো আপনাদের সামনে আজকে হাজির হলাম নতুন একটি টপিক নিয়ে।

 

আজকে আমরা আলোচনা করব ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় ।এই বিষয়ে আজকে আমরা বিস্তারিত কথা বলবো ইনশাআল্লাহ।

ফেসবুক একসময় শুধুই বিনোদনের মাধ্যম ছিল । আমরা যখন ফেসবুকে আসি সময়টা আমি যখন ফেসবুকে আসি তখনকার সময় টা ছিল 2014 সাল । ফেসবুক প্রতিষ্ঠা হয়েছে 2004 সালে সবার জন্য উন্মুক্ত হয়েছে 2009 সালে। ফেসবুক প্রতিষ্ঠার প্রথম দিক এরকম কেউ ইনকামের চিন্তা করে ফেসবুকে আসতো না।

তখন আমরা যারা ব্যবহার করতাম সবাই সময় কাটানোর জন্য বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেওয়ার জন্য একে অন্যের সাথে যোগাযোগ করার জন্যই এই ফেসবুক ব্যবহার করত।  কিন্তু এখন সময় পাল্টে গেছে এখন আর সেই ধারন নেই এখন ফেসবুক বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের একটি মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে ।

আপনি এখন ফেসবুক শুধু বিনোদনের জন্যই ব্যবহার করবেন না । আপনি চাইলে এখান থেকে শত শত টাকা হাজার হাজার টাকা আপনি ইনকাম করতে পারবেন ।

এখন আপনার প্রশ্ন হল কিভাবে আপনি ফেসবুক থেকে ইনকাম করবেন ফেসবুক থেকে আয় করার উপায় টা কি?  হ্যা বন্ধুরা আপনার মনে যদি এরকম প্রশ্ন উদয় হয় যে, ফেসবুক থেকে প্রতিদিন ইনকাম করার উপায় । ফেসবুক থেকে প্রতিদিন 500 টাকা ইনকাম করার উপায়।  ফেসবুক থেকে ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট ‌‌ ফেসবুকে ইনকাম এর গাইডলাইন। ফেসবুকে লাইক দিয়ে ইনকাম।

 

মোটকথা ফেসবুক থেকে ইনকাম রিলেটেড যত ধরনের প্রশ্ন আপনার মনের মধ্যে উঁকিঝুঁকি দিচ্ছে, এইসব প্রশ্নের সমাধান আজকে আমি দেবার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ।  আপনি ধৈর্য সহকারে আমাদের আজকের এই ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় ?  এই পোস্টার শেষ পর্যন্ত পড়বেন আশা করি আপনার মনের মাঝে থাকা ফেসবুক থেকে ইনকামের উপায় নিয়ে সকল ধরনের প্রশ্নের সমাধান হবে ইনশাল্লাহ।  তো কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করি কিভাবে আপনি ঘরে বসেই আপনার হাতে থাকায় মোবাইলটা দিয়েই আপনি ফেসবুক থেকে একটি ভালো পরিবার ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন।

ফেসবুক থেকে ইনকাম করার উপায়

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় এই প্রশ্নটির উত্তর দেবার আগে আপনার একটি প্রশ্নের উত্তর আগে ভালোভাবে জানা থাকা দরকার । সেটা হলো ফেসবুক থেকে ইনকাম করার উপায় ?  কিভাবে আপনি ফেসবুক থেকে ইনকাম করবেন ?

 

আপনি যদি এটাই না জানেন যে,‌কিভাবে আপনি ফেসবুক ব্যবহার করে ফেসবুক কে কাজে লাগিয়ে ইনকাম  করবেন। তাহলে তো আপনার এটা জেনে লাভ নাই যে ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় আপনাকে আগে জানতে হবে ফেসবুক থেকে ইনকাম কিভাবে করা যায় ।

এরপরে আপনি জানতে পারবেন কত টাকা আয় করা যায় । যেমন ধরুন আপনি যদি একটি বিজনেস স্টার্ট করেন তাহলে আপনি কি আগেই বলতে পারবেন যে আপনি এই বিজনেস থেকে কত টাকা আয় করতে পারবেন ।

ধরুন আপনি একটি মুদি দোকানের ব্যবসা শুরু করার চিন্তা করেছেন এখন আপনি ব্যবসায় নামার আগেই যদি কাউকে প্রশ্ন করেন ভাই মুদি দোকান থেকে কত টাকা আয় করা যায় ? তাহলে কি আপনাকে সঠিক উত্তর দিতে পারবে ?  যাকে প্রশ্ন করবেন ! না ভাই দিতে পারবে না।  ঠিক তেমনি ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় এই প্রশ্নটার উত্তর জানার আগে আপনাকে জানতে হবে ফেসবুক থেকে কিভাবে আয় করা যায় ।

 

আপনি যখন এই প্রশ্নটার উত্তর জানবেন তখন আপনি কত টাকা আয় করা যায় এটা আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন । যে রকম আপনি যখন মুদি দোকানের বিজনেস বুঝতে পারবেন তখন আপনি তখন আপনি জানবেন যে কত টাকা এই মুদি দোকান থেকে আপনি আয় করতে পারবেন।

 

আপনার আশেপাশে তো অনেক মুদি দোকানি আছে সব মুদি দোকান কি একই পরিমাণ ইনকাম করে ? আপনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন যে আপনার আশেপাশের এমনও দোকান আছে যারা দৈনিক এক লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারে ।

 

আবার এমনও দোকান পাবেন যারা মাসে 10000 টাকা ইনকাম করতে পারে না।  আপনাকে বুঝতে হবে যে কে কত টাকা ইনকাম করতে পারবে, সেটা তার দক্ষতা তার বিজনেস পলিসির উপর নির্ভর করে।  তাই ফেসবুক থেকে কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন বা কত টাকা ইনকাম করা যায় সেই প্রশ্ন উত্তর সরাসরি দেওয়া যায় না । তবে আপনি যদি সঠিকভাবে ফেসবুক থেকে ইনকাম করার উপায় জানেন।

তাহলে আমি মিনিমাম বলতে পারি আপনার জীবন চালানোর মতো ভালো পরিমাণ টাকা আপনি ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় ? 

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় ?এই প্রশ্ন জানার আগে চলুন জানি ফেসবুক থেকে কত ভাবে আয় করা যায় । মানে ফেসবুক থেকে আয় করার পদ্ধতি কতগুলা । আপনি কি কি উপায় অবলম্বন করে ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন সেটা এখন আপনাদের সাথে আমি আলোচনা করব।

ফেসবুক থেকে আয় করার পদ্ধতি

  1. ফেসবুক গ্রুপ থেকে আয়।
  2. ফেসবুক পেজ থেকে আয়
  3. ফেসবুক প্রোফাইল থেকে আয়।
  4. ফেসবুকের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করে আয়।
  5. ফেসবুক রিলেটেড বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের সার্ভিস দিয়ে আয়।
  6. ফেসবুক পেজ প্রমোট, বুস্টিং সার্ভিস দিয়ে আয়।
  7. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর মাধ্যমে আয়।
  8. ফেসবুকে ভিডিও শেয়ার করে আয়

 

ফেসবুক গ্রুপ থেকে আয়

আপনি যদি একজন ফেসবুক ইউজার হয়ে থাকেন । এবং আপনার অধীনে যদি একটি ফেসবুক গ্রুপ থাকে । এবং সেই ফেসবুক গ্রুপ টা যদি বড় হয়।  সে গ্রুপের মেম্বার সংখ্যা যদি অনেক বেশি হয় । এবং ফেসবুক গ্রুপ টা যদি একটিভ থাকে তবে আপনি আপনার এই ফেসবুক গ্রুপ টা কাজে লাগিয়ে ঘরে বসে ভালো পরিমাণ ইনকাম করতে পারবেন।

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায়

আমার পরিচিত একজন ব্যক্তি আছেন যিনি ফেসবুক গ্রুপ কে ব্যবহার করে মাসে কয়েক লক্ষ টাকা ইনকাম করেন ! মূলত আপনি ফেসবুক গ্রুপ বিভিন্ন ভাবে ব্যবহার করতে পারবেন । যেমন আপনি চাইলে ফেসবুক গ্রুপ বানিয়ে একটু বড় করে বেশি মেম্বার এড করে সেটা সেল করতে পারবেন ।

 

এখন এক লক্ষ দুই লক্ষ মেম্বারের একটা ফেসবুক গ্রুপ 10 হাজার থেকে 20 হাজার বা আরো বেশি পরিমাণ টাকা বিক্রি করা যায়।  ফেসবুক গ্রুপ এর দাম দেশ ভেদে বিভিন্ন হতে পারে । যেরকম দরুন যদি বাংলাদেশি মেম্বারদের নিয়ে গঠিত ফেসবুক গ্রুপ হয় তাহলে সেই গ্রুপটার দাম তুলনামূলক একটু কম হবে।  তাও 10 হাজারের নিচে না ।

 

আবার যদি ফেসবুক গ্রুপ টা আমেরিকার মেম্বারদের নিয়ে গঠিত হয় তাহলে সেই গ্রুপটার দাম কয়েকগুণ বেশি হবে । তো যাই হোক মেম্বার যে দেশেই হোক ফেসবুক গ্রুপ বড় হলে বেশি মেম্বার যুক্ত ফেসবুক গ্রুপ আপনার কাছে থাকে আপনি সেটাকে বিক্রি করতেও পারেন।

অথবা বিক্রি এছাড়াও আপনি এই গ্রুপটার মাধ্যমে আরো অনেক উপায় ইনকাম করতে পারবেন । যেরকম আপনি যেকোনো পণ্য যদি সেল করতে চান অনলাইনের মাধ্যমে তবে আপনি সেই পণ্যের বিস্তারিত লিখে আপনার বড় গ্রুপটাতে পোস্ট করে দিন । দেখবেন ওখান থেকে আপনি অনেক কাস্টমার পেয়ে যাবেন।  যাদের কাছে আপনি আপনার পণ্য বিক্রি করে লাভবান হতে পারেন । অথবা আপনার কোন পণ্য নাই আপনার হাতে শুধু জাস্ট একটি বড় একটিভ ফেসবুক গ্রুপ আছে । এখন আপনি খোঁজ করলে পাবেন অনেকে আছেন যারা ফেসবুক গ্রুপ ভাড়া নেয় নির্দিষ্ট টাকার বিনিময়ে।

 

কিছু নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আপনার থেকে আপনার ফেসবুক গ্রুপ টা তারা ভাড়া নেবে তারা এই গ্রুপটা ভাড়া নিয়ে তাদের পণ্যের বিজ্ঞাপন গ্রুপে প্রচার করবে । এতে করে তাদের পণ্যের সেল বেড়ে যাবে তাদের ইনকাম হবে এবং আপনাকে গুরুপের ভাড়া দিয়ে দিবে।

এভাবে আপনি ফেসবুক গ্রুপ কে কাজে লাগিয়ে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারেন । এখন আপনি যদি প্রশ্ন করেন যে ফেসবুক গ্রুপ থেকে কত টাকা আয় করা যায় আশা করি আপনি এর উত্তর আপনার কাছে এখন আছে।  আপনি যদি ফেসবুক গ্রুপ বিক্রি করে দেন তাহলে কত পাবেন 10 / 15000 । আর যদি ফেসবুক গ্রুপে বিভিন্ন পন্য সেল  করেন তাহলে সেল করার উপরে আপনি টাকা পাবেন ‌‌ এবং আপনি যদি ভাড়া দেন কাউকে তাহলে ভাড়া কত দিবেন তার উপর আপনার ইনকাম হবে ।

ফেসবুক পেজ থেকে ইনকাম

আপনার হাতে ফেসবুক গ্রুপ নাই।  কিন্তু আপনি ফেসবুক গ্রুপ থেকে ইনকাম এর ফর্মুলাটা দেখে আপনার খুব আফসোস হচ্ছে তাইনা?  না ভাই আফসোস এর কিছু নাই । আপনার কাছে কি একটি জনপ্রিয় ফেসবুক পেজ আছে ?  যদি আপনার কাছে একটি ভালো ফেসবুক পেজ থাকে । তাহলে আপনিও ফেসবুক গ্রুপের মতো ফেসবুক পেজ থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

 

আপনি সেম পদ্ধতি কাজে লাগিয়ে ফেসবুক পেজের মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন।  আপনি ফেসবুক পেজ বিক্রি করতে পারবেন।  ফেসবুক পেজ ভাড়া দিতে পারবেন।  ফেসবুক পেজে বিভিন্ন পণ্য প্রমোট করে ইনকাম করতে পারবেন ।

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায়

এছাড়াও ফেসবুক পেজ কে কাজে লাগিয়ে আপনি আরও অনেক ভাবে ইনকাম করতে পারবেন । যে রকম আপনি যদি কোন ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন আপনার ফেসবুক পেজে প্রচার করেন।  আপনার ফেসবুক পেজ যদি জনপ্রিয় হয় । তাহলে বিভিন্ন ব্র্যান্ড আপনাকে তাদের প্রচার এর জন্য আপনাকে টাকা প্রদান করবে।

এভাবে আপনি ফেসবুক পেজ কে কাজে লাগিয়ে ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ফেসবুক প্রোফাইল থেকে আয় করার উপায়

আপনার কাছে কি বিপুল পরিমাণ ফলোয়ার সহ একটি ফেসবুক প্রোফাইল আছে ?  যদি আপনার কাছে জনপ্রিয় একটি ফেসবুক প্রোফাইল থাকে তাহলে আপনি সেটাকে কাজে লাগিয়ে ঘরে বসেই ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কিভাবে ইনকাম করবো সেটা তাহলে শুনুন।  আপনি যেকোনো পন্যের এফিলিয়েট করে ইনকাম করতে পারবেন।  অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং টা হল,  ধরুন আমার কাছে একটি পণ্য আছে।  আমি মোটরসাইকেল এর বিজনেস করি তো । আপনাকে আমি দায়িত্ব দিলাম যে,  আপনি  আমার এই মোটরসাইকেল বিষয়ে আপনার প্রোফাইলে লেখালেখি করে আপনি আমার মোটরসাইকেল গুলো বিক্রি করে দেন।

এখন আপনি আমার কথা মত আমার মোটরসাইকেল গুলো আপনি আপনার প্রোফাইলে আপনার মত করে লিখে সেটা বিক্রির ব্যবস্থা করে দিবেন ‌‌ এখানে আপনাকে আমি প্রত্যেকটা মোটরসাইকেলের প্রতি   5 পার্সেন্ট  কমিশন আপনাকে দিলাম । যে একটা মোটরসাইকেল বিক্রি করে দিলে যত টাকা হবে তার 5 পার্সেন্ট টাকা আপনি পাবেন ।

 

এখন একটা মোটরসাইকেলের যদি 100 টাকা মূল্য হয় আপনি সেখান থেকে 5 টাকা পাবেন এভাবে আপনি যত মোটরসাইকেল বিক্রি করবেন তত ইনকাম করতে পারবেন । এভাবে আপনি আপনার প্রোফাইল কাজে লাগিয়ে ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

ফেসবুক সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের সার্ভিস দিয়ে আয়

 

ফেসবুক আমরা যারা ব্যবহার করি তারা অনেক সময় ফেসবুক ব্যবহার করতে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হই । যেরকম ধরুন আইডি ডিজেবল হয়ে যাওয়া । আইডি হ্যাক হয়ে যাওয়া  ফেসবুক আইডি সাময়িকের জন্য বন্ধ হয়ে যাওয়া।

এছাড়াও বিভিন্ন খুঁটিনাটি সমস্যা হয়ে থাকে যেগুলা আমরা বুঝিনা  ।এখন আপনি যদি ফেসবুকের সমস্যা সমাধানে এক্সপার্ট হন।  তাহলে আপনি ঘরে বসেই যাদের ফেসবুক আইডিতে সমস্যা হচ্ছে , তাদের সমস্যাগুলো সমাধান করার মাধ্যমে আপনি ইনকাম করতে পারেন । ফেসবুকে বেশকিছু গ্রুপ আছে যারা এই সমস্যাগুলো সমাধান করে দিয়ে ইনকাম ইনকাম করতেছে । তো আপনিও পারবেন যদি আপনি ফেসবুকের সমস্যা সমাধান করতে এক্সপার্ট হন 

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর মাধ্যমে আয়

আপনি কি লেখালেখি করতে পারেন ?  আপনি যদি ভাল আর্টিকেল লিখতে পারেন এবং আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট থাকে।  যেখানে আপনি লেখালেখি করেন তো আপনি সহজেই এই ওয়েবসাইটকে ফেসবুকের মাধ্যমে মনিটাইজ করে,  আপনি ফেসবুকের একটি সেবা ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনি ইনকাম করতে পারবেন।

এখান থেকে আপনি হিউজ পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।  আপনার ওয়েবসাইটে ফেসবুক থেকে যত ভিজিটর যাবে ঠিক তত ইনকাম আপনি ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল মাধ্যমে করতে পারবেন ।

ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল নিয়ে বিস্তারিত কথা হবে অন্য কোন দিন।  আজকে আর এই বিষয়ে অধিক বিস্তারিত বলছি না । ইনশাল্লাহ পরবর্তীতে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল নিয়ে কথা হবে ‌‌। শুধু এটুকু জেনে রাখেন যে ফেসবুকে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর মাধ্যমে আয় করা যায়।

 

ফেসবুক পেজ প্রমোট হোস্টিং সার্ভিস দিয়ে আয়

আপনি কি ফেসবুক পেজ প্রমোট বা বুষ্টিং করতে পারেন ? আপনি যদি একজন ডিজিটাল মার্কেটিং হন ফেসবুক বুস্টিং এক্সপার্ট হন তাহলে আপনি অন্যকে ফেসবুক পেজ বুস্ট সার্ভিসের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন ! এখান থেকে আপনি ইউজ পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন । যদি আপনি সঠিকভাবে বুষ্টিং সার্ভিস দিতে পারেন।

 

ফেসবুকে ভিডিও শেয়ার করে আয়

আপনি যদি একজন প্রফেশনাল মানের ভিডিও ক্রিয়েটর হয়ে থাকেন । তাহলে আপনি ফেসবুকে আপনার ইউনিক ভিডিও পাবলিস্ট করে সেখান থেকে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন । ফেসবুক ভিডিও শেয়ারিং করে কিভাবে ইনকাম করতে পারবেন সেটা যদি না বুঝেন তাহলে আমি একটু বুঝাই অনেক সময় আমরা ফেসবুকে যখন ভিডিও দেখি।

মাঝখানে হুট করে একটা অ্যাড  চলে আসে আমরা ভিডিও দেখার মাধ্যমে যে আমাদের সামনে  যে এবং চলে আসে এবং আমরা সেই এডটা দেখি । যেই পেজ থেকে আমরা ভিডিওটি দেখতে পাই সেই পেজের  মালিক কিছু টাকা পেয়ে থাকে ।

 

এভাবে আপনিও চাইলে আপনি ভিডিও বানিয়ে সেই ভিডিও গুলো ফেসবুকে শেয়ার করে দেবেন।  এবং এর বিনিময়ে আপনি ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন‌ । এখন যদি আপনি বলেন যে ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় এই কাজগুলো করে । তাহলে আমি বলব আপনার ভিডিওতে যত বেশি হবে তত বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবে আশা করি বিষয়টি ক্লিয়ার করতে পেরেছি।

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায়

আপনার মনে এখনো কি সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে ? ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় ? যদি প্রশ্ন এখনো থেকে থাকে তাহলে আমি আপনাকে বলবো যে , আপনি ফেসবুক থেকে আনলিমিটেড পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন । আপনার দক্ষতা যত বেশি আপনার ইনকাম ততবেশি।

অবশ্যই পড়ুন

 

আপনি যত কাজ করতে পারবেন তত ইনকাম করতে পারবেন । আমি উপরে যেই উপায়গুলোর মাধ্যমে ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম এর কথা বলেছি । আপনি এই মাধ্যমগুলোতে কতটা এক্সপার্ট তার উপর নির্ভর করছে আপনার ইনকাম।

আপনি যদি এ বিষয়গুলোতে ভালো পরিমাণে এক্সপার্ট হয়ে থাকেন । তাহলে আপনি প্রত্যেক মাসে শুধুমাত্র ফেসবুক ব্যবহার করে ফেসবুকের মাধ্যমে আপনি প্রত্যেক মাসে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন।  এবং অনেকেই করতেছেন।  আমার পরিচিত অনেকেই আছেন যারা প্রত্যেক মাসে শুধু ফেসবুক থেকেই ১,২,৫,লক্ষ টাকা ইনকাম করতেছেন।

ফেসবুকে লাইক দিয়ে আয়ঃ

অনেকেই গুগলে সার্চ করে থাকে লাইক দিয়ে আয়৷ আসলে ভাই টাকা ইনকাম এত সহজ না।  আমার মনে হয় যারা শুধু লাইক দিয়ে আয় করার ধান্দা করেন এই বেশিরভাগ প্রতারিত হন ।  তাই আমার পরামর্শ হলো এগুলোর পিছে না ঘুরে নিজের দক্ষতা বাড়ান। ইনকাম অটোমেটিক বেড়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।

লাইক দিয়ে আয়

শেষ কথা

ফেসবুক থেকে কত টাকা আয় করা যায় এই টপিকে আজকে অনেক বিস্তারিত কথা বললাম।  আশা করি আমার এই লেখা থেকে আপনি একটু হলেও উপকৃত হয়েছেন।  তো আজকের মত লেখা এখানেই শেষ করছি।

আগামীতে হয়তো অন্য কোন বিষয় নিয়ে আপনাদের সামনে আবারো হাজির হব।  ততদিন পর্যন্ত ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন‌ ।  ট্রিক নোটিশ এর সাথেই থাকুন ট্রিক নোটিশকে মনে  রাখুন।। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.