Samsung Galaxy F22 ফুল বাংলা রিভিউ ২০২২

হ্যালো প্রিয় ভিজিটর আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। আপনাদেরকে আবারো আমাদের সাইটে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক স্বাগতম জানাই। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে Samsung F22 ফোন টি এর বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

 

আমরা প্রায়ই নতুন নতুন ফোন কিনছি বর্তমানে। এখন একটি ফোনের সাথে আরেকটি ফোনের তুলনা করা বেশ মুশকিল। তো আজকে আপনাদের সাথে বাজেট ফ্রেন্ডলি আরো একটি ভালো ফোন এর রিভিউ নিয়ে এসেছি। তো চলুন দেখে নেই ফোন টি এর সম্পূর্ণ রিভিউ।

 

Samsung Galaxy F22
Samsung Galaxy F22

Samsung Galaxy F22 price in bangladesh

Samsung Galaxy F22 ২০২১ সালের ৩১শে আগস্ট প্রথম বার বাংলাদেশে এই ফোন টি লঞ্চ করা হয়। লঞ্চ করার সময় এটি মাত্র ১ টি ভ্যারিয়েন্টেই লঞ্চ করা হয়। সেটি হলো ৬ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট এ। এই ফোন টি এর মূল্য আমাদের দেশের বাজারে মাত্র ১৯,৪৯৯ টাকা। তবে জায়গা ভেদে এবং পরিচিত – অপরিচিত এর ক্ষেত্রে কিছু যায়গায় দাম কম বেশি হতে পারে।

ডিজাইন

Samsung Galaxy F22 ফোন টি হাতে নিয়েই আপনার কিছুটা ভারী মনে হতে পারে। এর কারণ হলো এটার ওজন ২১৪ গ্রাম এর কাছাকাছি। আমরা এর আগে দেখেছি বেশির ভাগ ফোনেই কিন্তু ওজন ২০০ এর কাছাকাছি হয়, তবে এই Samsung Galaxy F22 ফোন টি এর ওজন বেশি হওয়ার কারণ হলো এটাতে রয়েছে ৬,০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের একটি বিশাল ব্যাটারি।

এই ফোন টি একটু মোটা সোটা একটি ফোন, যারা কিনা হালকা এবং স্লিম ফোন পছন্দ করেন তাদের কাছে ফোন টা বেশি একটা ভালো লাগবে না। তবে এই ফোন টি এর বডি বিল্ড আবার অনেক ভালো। এটি ফুল পলি কার্বোনেড বিল্ড। এবং এর রেয়ার প্যানেল প্লাস্টিক বডি বিল্ডের।

ফোন টি এর একটি ভালো বিষয় হলো এর রেয়ার প্যানেলে কোনো রকমের ফিঙ্গারপ্রিন্ট বসে না। আর যেটুকু বসে তাও আবার দেখা যায় না। এই ফোনের রেয়ারে কিছুটা টেকচার আছে, যার ফলে একটু গ্রিপ ও পাওয়া যায়। এই ফোন টি ২ টি কালারে বাজারে লঞ্চ হয়েছে। একটি কালো এবং আরেকটি হলো নীল রঙ এর।

Samsung Galaxy F22 ফোন টি তে আপনারা ডান সাইডের দিকে পাওয়ার বাটন পাবেন যা কিনা ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর হিসেবে কাজ করবে। আর এর ঠিক উপরেই আছে ভলিউম বাটনস।

এই ফোনের উপরের দিকে পাবেন সেকেন্ডারি নয়েস সেন্সর। এবং এর বাম দিকে রয়েছে সিম কার্ড স্লট। এবং নীচের দিকে আমরা দেখতে পাবো স্পীকার, চার্জিং পোর্ট, মাইক্রো এবং ইয়ারফোন জ্যাক পোর্ট। আর এই ফোনের রেয়ার এর বাম সাইডে থাকছে ৪ টি ক্যামেরা। এবং একটি ফ্ল্যাস লাইট।

Display

Samsung Galaxy F22 ফোন টি তে ডিসপ্লে হিসেবে দেওয়া হয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি এর একটি সুপার এমোলেড প্যানেল। এই ডিসপ্লে কে প্রটেকশন করছে কর্ণিং গোরিলা গ্লাস ৫। যেহেতু ডিসপ্লে টি সুপার এমোলেড প্যানেল তাই এটি খুব ভালো কালার দেয়। এবং এটিই হওয়ার কথা।

ফোন টি এর ডিসপ্লে এর পিপিআই ডেন্সিটি হলো ২৭৪। তবে দুঃখের বিষয় হলো এটি এইচডি প্লাস রেজুলেশন এর। এইরকম বাজেটে আমরা ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশন এর ফোন ই আশা করি, কিন্তু স্যাম সাং এখানে আমাদের দিচ্ছে সুপার এমোলেড প্যানেল। এবং এই ডিসপ্লে এর সাথে দিয়েছে ৯০ হার্জ রিফ্রেস রেট।

যা কিনা এই ডিসপ্লে এর সাথে বেশ ভালো ভাবে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে পেরেছে। এর ডিসপ্লে এর ব্রাইটনেস হলো ৬০০ নিটস। এই ফোন টি তে আপনারা ৯০ হার্জ এর ফুল ফিলিং পাবেন। অন্যান্য ফোনে হয়তো ৯০ হার্জ থাকে কিন্তু সেই ফিল পাওয়া যায় না।

কিন্তু এই ফোনে আপনি সেটা পাবেন। আবার এর টাচ রেসপন্স ও খুব ভালো। যত যাই হোক দিন শেষে গিয়ে আমরা সেই ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশন এর ঘাটতি টা ঠিকই অনুভব করবো।

আরো পড়ুনঃ এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য ৫ টি প্রয়োজনীয় এপস

Performance

Samsung Galaxy F22 এই ফোনে আপনাদের জন্য থাকছে ৬ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ। এবং এই ফোন টি এর প্রসেসর সেকশনে রয়েছে মিডিয়া টেক হেলিও জি৮০ (১২ এনএম)। এবং এর গ্রাফিক্স ডিজাইন কে সাপোর্ট করছে মালি জি৫২ এমসি২। এবং এর এন্ড্রয়েড সিস্টেমে রয়েছে এন্ড্রয়েড ১১।

২০,০০০ টাকার ফোনে যে প্রসেসর আমাদের এই Samsung Galaxy F22 ফোনে দেওয়া হয়েছে তা আসলেই মেনে নেওয়ার মতো নয়। এই মিডিয়া টেক জি৮০ এর বদলে যদি মিডিয়া টেক এর ই কোনো পাওয়ার ফুল প্রসেসর দেওয়া হতো তাহলে আরো ভালো হতো এই ফোন বলে মনে করি।

হ্যাঁ, এই প্রসেসর যে একেবারে খারাপ তা নয়, কিন্তু এই ২০২১-২০২২ সালে এসে ২০,০০০ টাকায় এমন প্রসেসর একেবারেই মেনে নেওয়ার মতো না। এই প্রসেসর দিয়ে আপনারা যে একেবারেই খারাপ ফিলিং পাবেন ফোন ব্যবহারে তাও কিন্তু নয়।

এই Samsung Galaxy F22 ফোনে আপনারা রেগুলার কাজ করতে পারবেন একেবারে নিমিষেই। আবার মাল্টি টাচ ও বেশ ভালো ভাবেই নিতে পারে এই ফোন টি। হ্যাঁ তবে হ্যাভি ইউজে কিছুটা ল্যাগি ল্যাগি ভাব পাবেন। তবে চালিয়ে নেওয়ার মতো আরকি।

Gaming

গেমিং এ বাজেটের দিক দিয়ে অন্যান্য ফোনের তুলনায় এই ফোন টি অনেকটা পিছিয়ে থাকবে। এই ফোন টা তে গ্রাফিক্স অনেক টা ভালোই পাবেন গেমিং এ। তবে হ্যাভি গেমিং না করলেও গেমিং করার কিছুক্ষণ পর থেকেই ল্যাগি ল্যাগি ভাব পাবেন।

বিশেষ করে পাবজি, ফ্রি ফায়ার এসব গেম এই ফোনে খেলার একেবারে অনুপোযোগী। তবে একেবারেই খেলা যাবে না তা নয়। চাইলে খেলতে পারবেন। তবে ল্যাগি ল্যাগি ভাব পাবেন।

Samsung Galaxy F22
Samsung Galaxy F22

Camera

Samsung Galaxy F22 ফোনে আপনারা পাচ্ছেন রেয়ারে ৪ টি ক্যামেরা। সেগুলো যথাক্রমে ৪৮, ৮, ২, ২ মেগা পিক্সেল করে। এবং ফন্ট ক্যামেরা টি ১৩ মেগা পিক্সেল এর। এই ক্যামেরা গুলো দিয়ে বেশ ভালোই ছবি তুলতে পারবেন।

তবে ভালো লাইটিং না থাকলে কিছুটা ঢিলে হয়ে যায় ক্যামেরা টি। তবে প্রোপার লাইট পেলে এটা আপনাকে বেশ ভালো ক্যামেরা এর এক্সপ্রেরিয়েন্স দিবে।

Battery

এই ফোনের বিশেষ আকর্ষণ হলো এর ব্যাটারি। এই ফোনে দেওয়া হচ্ছে ৬,০০০ mAh এর একটি বিশাল ব্যাটারি। এবং এই ফোনের বক্সেই আপনারা পেয়ে যাবেন একটি ১৫ ওয়ার্টের চার্জার। যা দিয়ে আপনার ফোন টি কে ০ থেকে ১০০ ফুল চার্জ করতে সময় লাগবে ৪ ঘন্টা বা ৪ ঘন্টা ++ এমন সময়।

এই ফোনের ব্যাক আপ পাওয়ার আবার বেশ ভালো। আপনি যদি হ্যাভি ইউজার ও হয়ে থাকেন তাহলেও কিন্তু একবার ফুল চার্জ করে নিলে ২ দিনের মতো ব্যাক আপ পাবেন। আর যদি নরমাল ইউজার হন তো অনায়াসে ৫-৭ দিনের ব্যাক আপ পাবেন।

 

তো প্রিয় ভিজিটর আশা করছি আপনাদের কাছে আজকের এই পোস্ট টি ভালো লেগেছে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন। এবং আমাদের সাইটে এরকম আরো অনেক হেল্পফুল পোস্ট রয়েছে সেগুলো পড়তে চাইলে আমাদের সাইট টি একবার ভিজিট করুন। আর আজকের মতো এখানেই বিদায়, ভালো থাকবেন সুস্থ্য থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.