Redmi Note 11t 5G ফোনের সম্পূর্ণ বাংলা রিভিউ

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠকগণ। আশা করি আল্লাহর রহমতে সকলেই ভালো আছেন। আপনাদেরকে আবারো আমাদের সাইটে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক স্বাগতম জানাই। আজকের পোস্ট এ Redmi Note 11t 5G ফোনটি এর সমস্ত বিষয় নিয়ে আপনাদের সাথে আমি বিস্তারিত আলোচনা করবো। চলুন তো আর বেশি দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

Redmi Note 11t 5G Price In Bangladesh

Redmi Note 11t 5G হলো বাংলাদেশের বাজারে সদ্য রিলিজ হওয়ার নতুন একটি ফোন। ২০২১ সালের ৭ই ডিসেম্বর বাংলাদেশে প্রথম এটি লঞ্চ করা হয়। এই ফোন টি বাংলাদেশের বাজারে ২ টি ভ্যারিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছে। একটি হলো ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। এবং আরেকটি হলো ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ।

৬-১২৮ জিবি এর দাম রাখা হয়েছে ২৩,০০০ টাকা এবং ৮-১২৮ জিবি এর দাম রাখা হয়েছে ২৫,০০০ টাকা। বাংলাদেশের বাজারে বেশ বড় সড় একটি ঝড় তুলেছে এই ফোন টি।

Redmi Note 11t 5G ফোনের বাংলা রিভিউ
Redmi Note 11t 5G ফোনের বাংলা রিভিউ

Display And Body

বেশ বড় সড় একটি ডিসপ্লে এর একটি ফোন হলো এই Redmi Note 11t 5G। এই ফোনের ডিস্পলে হিসেবে রাখা হয়েছে ৬.৬ ইঞ্চি এর একটি আইপিএস এলসিডি প্যানেল। যেহেতু এটি একটি আইপিএস এলসিডি প্যানেল তাই আশা করা যায় বেশ ভালো কালার দিবে এই ফোনের ডিসপ্লে টি।

Redmi Note 11t 5G ফোনের ডিসপ্লে এর পিপিআই ডেনসিটি হলো ৩৯৯ এবং এর ডিসপ্লেতে রয়েছে ৯০ হার্জ রিফ্রেস রেট। Redmi Note 11t 5G ফোনের ডিসপ্লে কে প্রটেকশন করছে কর্ণিং গোরিলা গ্লাস ৩ ।

মাল্টিটাচ এও এই ফোন টি বেশ ভালো পার্ফমেন্স দিবে আপনাকে। যদি ২৫ হাজার টাকার মধ্য ভালো ডিসপ্লে এর কোনো ফোন খুজেন আপনি তাহলে আমি আপনাকে এই ফোন টি সাজেস্ট করবো।

Design

এই ফোনের ডিজাইন অনেক সুন্দর করা হয়েছে অন্যান্য ফোনের থেকে যা আপনার অনেকটা ভালো লাগবে। Redmi Note 11t 5G ফোনের রেয়ার প্যানেল এবং বডি পুরো টা প্লাস্টিক বডি বিল্ড এর। এই ফোন আপনি ৩ টি কালারে পাবেন Aquamarine Blue, Stardust White, Matte Black এই ৩ কালারে।

এই Aquamarine Blue, Stardust White, Matte Black ফোনে আপনি পাওয়ার বাটনের সাথেই পেয়ে যাবেন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এই ফোনের ওজন খুব বেশি একটা নয়। এর ওজন ১৯৫ গ্রাম এর কাছাকাছি।

আরো পড়ুনঃ সেরা ৫ টি এন্ড্রয়েড গেমস (অফলাইন গেমস)

Performance & Gaming

এই Redmi Note 11t 5G আপনারা পাচ্ছেন ৬-১২৮ জিবি এবং ৮-১২৮ এই ২ টি ভ্যারিয়েন্ট। এবং এই ফোনের প্রসেসর সেকশনে থাকছে MediaTek Dimensity 810 5G (6 nm) এবং এর প্রসেসর সিস্টেম কে পাওয়ার করছে Mali-G57 MC2। এর সিপিইউ হিসেবে আপনারা পাচ্ছেন Octa-core (2×2.4 GHz Cortex-A76 & 6×2.0 GHz Cortex-A55)।

এই ফোনে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে Android 11, MIUI 12.5 । যা আপনাকে অনেক টা ভালো পার্ফমেন্স দিবে নরমাল রেগুলার কাজের পাশাপাশি হ্যাভি কাজেও।

গেমিং এর কথা বলতে গেলে, একেবারেই গেমিং করতে পারবেন আবার খুব ভালো গেমিং করতে পারবেন এমন কোনো টা ই না। বলতে গেলে মোটা মুটি গেমিং করতে পারবেন। তবে পাবজি, ফ্রি ফায়ার এর মতো গেম গুলো খেলার সময় অনেকটা ল্যাগি ল্যাগি ভাব পাবেন। তবে ছোট ছোট গেমে অত একটা খারাপ রেজাল্ট দিবে না আপনাকে এই Redmi Note 11t 5G ফোন টি।

Network

Redmi Note 11t 5G ফোন টি এর সব থেকে বড় আকর্ষণ যে টা হলো সেটা হলো এই ফোনে ৫ জি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করবে। আপনারা তো জানেন ই যে সদ্যই কিন্তু বাংলাদেশে ৫ জি নেটওয়ার্ক স্থাপণ করা হয়েছে। সেই কথা মাথায় রেখেই এই ফোন বানানো হয়েছে। তাই বলায় যায় বেশ ভালো ইন্টারনেট সুবিধা পাবেন এই ফোনের ইউজারকারী রা।

Redmi Note 11t 5G ফোনের বাংলা রিভিউ
Redmi Note 11t 5G ফোনের বাংলা রিভিউ

Camera

এই ফোনের রেয়ারে আপনারা পাবেন ২ টি ক্যামেরা। প্রাইমারি ক্যামেরা টি ৫০ মেগা পিক্সেল এর। এবং আরেকটি ক্যামেরা হলো ৮ মেগা পিক্সেল এর একটি আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা। এবং এই ফোনের ফন্ট ক্যামেরা হিসেবে থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা।

এই ক্যামেরা গুলো দিয়ে আপনারা বেশ ভালো ভালো ছবি তুলতে পারবেন। এছাড়াও যদি ভালো লাইট পায় এবং লাইটিং পার্ফেক্ট হলে ১০০% ভালো ছবি তোলা সম্ভব। এবং ফোন টি এর ক্যামেরা গুলো বেশ ভালো শার্পনেস ধরে রাখতে পারে।

Battery

এই ফোনের আরো একটি বড় আকর্ষণ হলো এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৫০০০ mAh এর একটি বিশাল ব্যাটারি। এই ফোন টি ফুল চার্জ করার জন্য আপনাকে ফোনের বক্সেই দিয়ে দেওয়া হবে ৩৩ ওয়ার্টের একটি ফাস্ট চার্জার যা দিয়ে মোবাইল ফুল চার্জ করতে সময় লাগবে ৬২-৬৫ মিনিট মানে ১ ঘন্টা ২ মিনিট – ১ ঘন্টা ৫ মিনিট এর মতো সময়।

এই ফোনের ব্যাটারি ব্যাক আপ ও আবার খুব ভালো। Redmi Note 11t 5G ফোন টি আপনাকে দিবে ২ থেকে ২.৫ দিনের মতো ব্যাক আপ যদি আপনি নরমাল ইউজার হন। কিন্তু আপনি যদি হ্যাভি ইউজার হন তো আপনাকে এটি তাও ১ দিনের মতো ব্যাক আপ দিতে পারবে।

তবে মনে রাখতে হবে এটি একটি ইলেকট্রনিক পণ্য। তাই এই ফোন গুলো কখনো চার্জে দিয়ে ব্যবহার করবেন না, এতে চার্জিং সিস্টেম এবং আপনার ফোনের ব্যাটারি এবং ব্যাটারি এর ব্যাক আপ পাওয়ার কমে যেতে পারে।

 

তো প্রিয় পাঠক রা আশা করছি যে আপনাদের আমাদের এই Redmi Note 11t 5G ফোনের রিভিউ টি ভালো লেগেছে। যদি পোস্ট এর কোথাও বুঝতে অসুবিধা হয় তো কমেন্ট করে জানাবেন আপনাদের মূল্যবান কমেন্টের রিপ্লে অবশ্যই পাবেন। আর যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে আপনারা অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.