এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য ৫ টি প্রয়োজনীয় এপস

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। আপনাদেরকে আবারো আমাদের সাইটে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক স্বাগতম জানাই। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে এএন্ড্রয়েড ফোনের কয়েকটি প্রয়োজনীয় এপ এই বিষয় টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

 

বর্তমানে এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করে না এমন মানুষ খুজে বের করা বেশ মুশকিলের একটি ব্যপার। এই এন্ড্রয়েড ফোন এখন আমাদের প্রায় প্রতিদিনের একটি ব্যবহার যোগ্য জিনিস হয়ে দাড়িয়েছে। প্রতিদিন এর আমাদের বিভিন্ন কাজে এবং একটি নির্দিষ্ট রুটিন এ আমরা কারণ – অকারণে ব্যবহার করি এই এন্ড্রয়েড ফোন নামক ইলেকট্রনিক যন্ত্র টি কে। আজকাল প্রায় প্রতি টা ছোট – বড় মানুষের নৃত্য দিন এর কাজের জন্য এই এন্ড্রয়েড ফোন টি ব্যবহার করা হচ্ছে।

অনেক ক্ষেত্রে আমরা না জেনেই বিভিন্ন এপস ইন্সটল করি এপ সম্পর্কে না জেনেই। কিন্তু এই সব অনেক সময় আমাদের মোবাইলের ক্ষতি করে। আবার অনেক এপ আছে যেগুলো ছাড়া মোবাইল ফোন প্রায় অচল।

আপনি নিজের হাতের মুঠোয় করে ফোন টি নিয়ে ঘুরছেন কিংবা পকেটে নিয়ে ঘুরছেন! কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন যে এই ফোনে ইন্সটল করা এপস গুলো আমাদের কি প্রয়োজন আছে নাকি নেই? প্রয়োজন এর জন্য অনেকেই শুধু মাত্র কথা বলার জন্য মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন।

তবে আপনাকে মোবাইল ফোন এর কিছু এপস সম্পর্কে অবশ্যই জানতে হবে, যে এপস গুলো আপনি নিজের মোবাইল ফোন ব্যবহার করলে নিজের মোবাইল কে খুব ভালো ভাবে ব্যবহার করতে পারবেন।

আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে এমন কয়েকটি এপস সম্পর্কে জানাবো যে গুলো ব্যবহার করলে আপনাদের দৈনন্দিন জীবনে স্মার্ট ফোন গুলো ব্যবহার করলে আর সহজ হয়ে যাবে আপনাদের এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করা। তো চলুন আমরা কয়েকটি এন্ড্রয়েডের এপস সম্পর্কে জেনে নিই।

এন্ড্রয়েড এর প্রয়োজনীয় এপস
এন্ড্রয়েড এর প্রয়োজনীয় এপস

এন্ড্রয়েডের প্রয়োজনীয় কয়েকটি এপস

আমি আগেই একবার বলেছি ইন্টারনেটে এখন প্রায় প্রতি নিয়ত বিভিন্ন এপস আপলোড করা হচ্ছে। এর মধ্য থেকে কোন এপস গুলো আমাদের দরকারী এবং কোন গুলো দরকারি নয় সেটা বের করা বেশ মুশকিল এর একটি ব্যাপার। তাও আমি আজকে আপনাদের সাথে এমন কয়েক টি এপস সম্পর্কে জানাবো যেগুলো আপনাদের প্রতি দিনের কাজ কে আরো সহজ করে দিবে।

SHAREit

আমরা যখন নতুন কোনো মোবাইল ফোন ক্রয় করি তখন আমরা চাই আমাদের অন্য বন্ধু বা অন্য কারো মোবাইল থেকে বিভিন্ন কিছু শেয়ার করে আমাদের নতুন মোবাইলে নেই। এর জন্য আমরা হয়তো সবার আগে ব্যবহার করতে চাই ব্লুটুথ নামক ফাইল শেয়ার কে।

কিন্তু আপনারা দেখে থাকবেন যে, ব্লুটুথ এর সাহায্য একটি ফোন থেকে অন্য ফোনে ১ এম্বি এর কোনো ফাইল শেয়ার করার জন্যও প্রায় ২০ থেকে ৪০ সেকেন্ডের মতো সময় লাগে। আর যদি ফাইল টি ৫০ মেগা বাইট (এমবি) বা এর থেকে বড় সাইজ এর কোনো ফাইল হয় তাহলে সেটা শেয়ার করার জন্য তো নিশ্চিন্তে আমাদের ৫ থেকে ১০ মিনিট সময় লাগবেই।

যার ফলে আমাদের অনেক সময় নষ্ট হবে। কিন্তু আপনারা যদি SHAREit নামক এই এপ টি ব্যবহার করেন তাহলে আপনারা ১০০ মেগা বাইট (এমবি) কিংবা এর বেশি বড় সাইজের ফাইল শেয়ার করতে চাইলেও আপনারা সেটা মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যই করতে পারবেন।

এই এপ টি প্লে স্টোরে প্রায় ১ বিলিয়ন এর ও বেশি বার ডাউন লোড করা হয়েছে। এবং এই এপ টি প্লে স্টোরে ৪.১ রেটিং এ রয়েছে এবং এর রিভিউ সংখ্যা হলো প্রায় ১৬ মিলিয়ন এর মতো। এই এপ টি এর সাইজ মাত্র ২৯ এমবি। আপনাদের যাতে আসল ও লকল এপ এর পার্থক্য করতে না হয়, তাই আমি নিচে এপ টি প্লে স্টোর থেকে ডাউন লোড করার লিংক দিয়ে দিচ্ছি।

Ridmik Keyboard

আপনারা তো সব সময় মোবাইল ফোন ব্যবহারে সময় কিবোর্ড ব্যবহার করেন ই। কিন্তু আপনারা কি যানেন এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য সব থেকে ভালো কিবোর্ড এর জন্য রিদ্মিক কি বোর্ড টি সব থেকে বেশি জনপ্রিয়।

এই এপ টি তে কি বোর্ড এর পাশা পাশি আপনারা আরো কয়েকটি ফিচার পাবেন। যেমন কি বোর্ড কে নিজের ইচ্ছে মতো কালারে কাস্টমাইজ করতে পারবেন। এবং চাইলে নিজের ছবিও এই কি বোর্ড এ দিতে পারবেন।

এবং এই এপ এ আপনারা মোট ৪ টি ভাষা পাবেন, বাংলা, ইংরেজি, অভ্র, জাতীয়। এই এপ টি আপনারা প্লে স্টোর এ খুব সহজেই পেয়ে যাবেন। এই এপ টি প্লে স্টোরে ৪.৩ রেটিং এ রয়েছে।

এই এপ টি এর সাইজ মাত্র ১০ এমবি এর মতো। এই এপ টি প্লে স্টোর থেকে ৫০ মিলিয়নের ও বেশি বার ডাউন লোড করা হয়েছে। আপনারা চাইলেই এই এপ টি ব্যবহার করতে পারবেন। আমি নিজেও এই এপ টি ব্যবহার করি।

আরো পড়ুনঃ ভিপিএন কী? সেরা ৫ টি ভিপিএন এপ!

PicsArt

আপনারা হয়তো নিজের ছবিকে ইডিট করতে চান খুব সুন্দর ভাবে। এর জন্য আপনারা এই এপ টি ব্যবহার করতে পারেন। ছবিকে সুন্দর করে ইডিট করার জন্য এই এপ টি বেশ জনপ্রিয়। এই এপ টি দিয়ে আপনারা এ কোনো ছবি ইডিট করতে পারবেন।

এই এপ টি প্লে স্টোর থেকে ৫০০ মিলিয়নের ও বেশি বার ডাউন লোড করা হয়েছে। এই এপ টি প্লে স্টোরে ৪.২ রেটিং এ রয়েছে। এবং এর রিভিউ সংখ্যা ১১ মিলিয়ন। এই এপ টি এর সাইজ মাত্র ৪২ এমবি। এই এপ টি প্লে স্টোর থেকে খুব সহজেই পেয়ে যাবেন।

Pixel Lab

এই এপ টি থাম্বনাইল তৈরি এর জন্য অনেক বেশি জনপ্রিয়। এই এপ দিয়ে আপনারা ইউটিউব ভিডিও এর পাশা পাশি বিভিন্ন আর্টিকেল এর থাম্বনাইল তৈরি করতে পারবেন। মোবাইল দিয়ে গ্রাফিক্স ফিজাইন এর জন্যও এই এপ টি বেশ জনপ্রিয়।

এই এপ টি প্লে স্টোর থেকে খুব সহজেই ডাউন লোড করা যায়। এই এপ টি এর সাইজ মাত্র ৩০ এম্বি এর মতো। এই এপ টি প্লে স্টোর এ ৫০ মিলিয়ন এর মতো বার ডাউন লোড করা হয়েছে। এই এপ টি ৪২৭ হাজারের মতো রিভিউ পেয়েছে। এই এপ টি আপনারা প্লে স্টোর এ পেয়ে যাবেন।

এন্ড্রয়েড এর প্রয়োজনীয় এপস
এন্ড্রয়েড এর প্রয়োজনীয় এপস

YouTube

এই এপ টি সম্পর্কে কিছু না বললেও সকলেই জানেন এর ব্যবহার কি। যদিও এই এপ টি সকল ফোনেই আগে থেকে থাকে তাও অনেকে এটা ডিলিট করে দেন। এই এপ টি প্লে স্টোর থেকে ডাউন লোড করতে পারবেন।

এর সাইজ মাত্র ৫০ এমবি এর মতো। এই এপ টি প্লে স্টোর থেকে ১০ বিলিয়ন এর মতো বার ডাউন লোড করা হয়েছে। এটি প্লে স্টোর থেকে ৪.০ রেটিং এ আছে এবং এর রিভিউ সংখ্যা হলো ১৩১ মিলিয়ন এর ও বেশি।

 

তো প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি আপনাদের কাছে আজকের এই পোস্ট টি ভালো লেগেছে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন। এবং আমাদের সাইটে এরকম আরো অনেক হেল্পফুল পোস্ট রয়েছে সেগুলো পড়তে চাইলে আমাদের সাইট টি একবার ভিজিট করুন। আর আজকের মতো এখানেই বিদায়, ভালো থাকবেন সুস্থ্য থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.